মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:০৩ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ
এয়ারপোর্ট থানায় জিডি করলেন আবুল বশর অপু ছাতকে এনআরবিসি ব্যাংকের শাখা উদ্বোধন গনধর্ষনের মামলায় বিচারকের রায় জাল! আল্লামা শাহ আহমদ শফির মৃত্যুতে ছাতকে উৎসর্গ ফাউন্ডেশনের শোক আল্লামা আহমদ শফির মৃত্যুতে ইউনাইটেড উলামা কাউন্সিলের শোক দুর্গাপূজায় ৩ দিনের ছুটির দাবিতে সিলেটে মানববন্ধন আল্লামা আহমদ শফির মৃত্যুতে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস যুক্তরাষ্ট্র শাখার শোক দোয়ারায় নরসিংপুর বাজারে ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং উদ্বোধন ছাতক থেকে একজন যোগ্য মানুষের বিদায়- সাংবাদিক তানভীর ঘুষ-দুর্নীতির ‘রসের হাঁড়ি’ শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন ভূমি অফিস অামি অান্তরিকতার সহিত কাজ করার চেষ্টা করেছি- বিদায়ী ওসি মোস্তফা কামাল বাউল সম্রাট শাহ্ আব্দুল করিমের প্রয়ান দিবসে জেলা প্রশাসনের শ্রদ্ধাঞ্জলী নবীগঞ্জে ৪’শ পিস ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার একজন বৈদুতিক লাইট জ্বালানোকে কেন্দ্র করে মালিকের হামলা, আহত ৩ ভাড়াটিয়া ইউনিয়ন নির্বাচনে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও আওয়ামী পরিবারের উত্তরসূরীদের মূল্যায়নের দাবি
বিশ্বতালিকায় প্রথম কোভিড ভ্যাকসিনের সফলতা কী রাশিয়ায়?

বিশ্বতালিকায় প্রথম কোভিড ভ্যাকসিনের সফলতা কী রাশিয়ায়?

শেয়ার করুনঃ

 

সব ঠিকঠাক চললে, রাশিয়া হতে চলেছে বিশ্বের প্রথম কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারী দেশ। রুশ সংবাদসংস্থা স্পুটনিক নিউজ জানিয়েছে, আগামী সপ্তাহেই বিশ্বের প্রথম করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নথিভুক্ত করতে চলেছে ভ্লাদিমির পুতিনের দেশ। দেশের উপ-স্বাস্থ্যমন্ত্রী ওলেগ গ্রিদনেভ শুক্রবার জানান, আগামী ১২ অগাস্ট প্রথম করোনা ভ্যাকসিনকে নথিভুক্ত করা হবে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী মিখাইল মুরাশকো জানান, অক্টোবর থেকেই ওই ভ্যাকসিনের গণ-উৎপাদন শুরু হয়ে যাবে। তিনি জানান, টিকাকরণ প্রক্রিয়ার গোটা খরচটাই বহন করবে প্রশাসন।

সংবাদসংস্থা গ্রিদনেভ বলেন, বর্তমানে ট্রায়াল প্রক্রিয়া তৃতীয় তথা শেষ পর্যায়ে রয়েছে। এই ট্রায়ালগুলি অত্য়ন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের এটা বুঝতে হবে, যে ভ্যাকসিনকে নিরাপদ হতে হবে। দেশের চিকিৎসা কর্মী ও প্রবীণ নাগরিকদের প্রথমে টিকাকরণ করা হবে। তিনি জানান, রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রক ও গামালেয়া গবেষণা ইনস্টিটিউটের যৌথ উদ্যোগে তৈরি এই ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা তখন বোঝা যাবে, যখন দশবাসীর শরীরে এই ভাইরাসের মোকাবিলায় প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে উঠবে।

বর্তমানে দুটি পৃথক জায়গায় এই ভ্যাকসিনের প্রয়োগ-পরীক্ষা চলছে। একটি বুরদেঙ্কো মেইন মিলিটারি হাসপাতাল ও দ্বিতীয় শেচেনভ ফার্স্ট মস্কো স্টেট মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটি। জানা গিয়েছে, রুশ ভ্যাকসিনের দুটি পৃথক উপাদান রয়েছে। সেগুলি আলাদা আলাদা ভাবে প্রয়োগ করা হচ্ছে। রুশ সরকারের দাবি, এর ফলে, ভাইরাসের বিরুদ্ধে দীর্ঘমেয়াদী প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে উঠবে।

রুশ সরকার দাবি করেছে, যারা এই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করেছে তাঁদের সকলের শরীরে রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়েছে। গত ১৮ জুন এই ট্রায়াল শুরু হয়েছে। অংশ নিয়েছে ৩৮ জন। এরমধ্য়েই, রাশিয়ায় আরেকটি ভ্যাকসিন নিয়ে গবেষণা চলছে। সেটি তৈরি করেছে ভেক্টর স্টেট রিসার্চ সেন্টার অফ ভাইরোলজি অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি। সংস্থার দাবি, আগামী নভেম্বর থেকেই তারা এই ভ্যাকসিনের উৎপাদন শুরু করতে পারবে।

শেয়ার করুন

Sylhet24Live.Com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY POS Digital