মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:৫৩ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ
এয়ারপোর্ট থানায় জিডি করলেন আবুল বশর অপু ছাতকে এনআরবিসি ব্যাংকের শাখা উদ্বোধন গনধর্ষনের মামলায় বিচারকের রায় জাল! আল্লামা শাহ আহমদ শফির মৃত্যুতে ছাতকে উৎসর্গ ফাউন্ডেশনের শোক আল্লামা আহমদ শফির মৃত্যুতে ইউনাইটেড উলামা কাউন্সিলের শোক দুর্গাপূজায় ৩ দিনের ছুটির দাবিতে সিলেটে মানববন্ধন আল্লামা আহমদ শফির মৃত্যুতে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস যুক্তরাষ্ট্র শাখার শোক দোয়ারায় নরসিংপুর বাজারে ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং উদ্বোধন ছাতক থেকে একজন যোগ্য মানুষের বিদায়- সাংবাদিক তানভীর ঘুষ-দুর্নীতির ‘রসের হাঁড়ি’ শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন ভূমি অফিস অামি অান্তরিকতার সহিত কাজ করার চেষ্টা করেছি- বিদায়ী ওসি মোস্তফা কামাল বাউল সম্রাট শাহ্ আব্দুল করিমের প্রয়ান দিবসে জেলা প্রশাসনের শ্রদ্ধাঞ্জলী নবীগঞ্জে ৪’শ পিস ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার একজন বৈদুতিক লাইট জ্বালানোকে কেন্দ্র করে মালিকের হামলা, আহত ৩ ভাড়াটিয়া ইউনিয়ন নির্বাচনে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও আওয়ামী পরিবারের উত্তরসূরীদের মূল্যায়নের দাবি
সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে প্রতারক অপুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে প্রতারক অপুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

শেয়ার করুনঃ

ফেঞ্চুগঞ্জ প্রতিনিধি :: সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে প্রতারক কাজী অপু মিয়া-কে (৩৫) আটক করেছে পুলিশ।মৃত হাবিবুর রহমানের পুত্র হচ্ছে প্রতারক কাজী অপু মিয়া ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুরের কাজীবাড়ি-র ছেলে।

ফেঞ্চুগঞ্জ থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রাজনপুর গ্রামের শেখ মোরশেদ আহমদ বাদী হয়ে ফেঞ্চুগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন। মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, প্রতারক কাজী অপু মিয়া ও তার ভাই কাজী টিপু মিয়ার কাছ থেকে নগদ ১৯ লক্ষ টাকা দিয়ে গেলো জুন মাসে শেখ মোরশেদ আহমদ তিনটি মাইক্রোবাস (নোহা গাড়ি) কিনেন। ক্রয়কৃত গাড়ির হালনাগাদ বাবদ শেখ মোরশেদের কাছ থেকে নগদ ৪ লক্ষ টাকা নেন অপু। কিন্তু গাড়ির হালনাগাদ কাগজ দিতে টালবাহানা করেন অপু।

জানা যায়, অপু নিজেকে থানার ওসি পরিচয় দিয়ে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করতেন। কাজী অপু ফেঞ্চুগঞ্জ থানার ওসির ও তার ভাই কাজী টিপু পুলিশ সুপার পরিচয় দিয়ে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছে। তারা দুইভাই একটি মোবইল নাম্বার থেকে ফোন করে পুলিশ সুপার পরিচয় দিয়ে এক প্রবাসীর টাকা আত্মাসাত করেছে।

পুলিশ জানায়, ওই নাম্বারে হোয়াট্সঅ্যাপ খুলে এর প্রোফাইল পিকচারে পুলিশ সুপার ও তার পরিবারের লোকজনের ছবি যুক্ত করে প্রতারণা করেন দুই সহোদর অপু ও টিপু।

এছাড়াও পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের ছবির সঙ্গে এডিট করে করে তারা নিজেদের ছবি লাগিয়েও প্রতারণা করেছে- এর প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ।

ফেঞ্চুগঞ্জ থানার ওসি আবুল বাসার মোহাম্মদ বদরুজ্জামান বলেন, আটক অপুকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। প্রতারক অপু বিভিন্নভাবে মানুষকে প্রভাবিত করে প্রতারণা করে আসছিলো। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং-০৫ (২/০৯/২০২০)।

সূত্র : ফেঞ্চুগঞ্জ নিউজ

শেয়ার করুন

Sylhet24Live.Com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY POS Digital