মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:৩৭ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ
এয়ারপোর্ট থানায় জিডি করলেন আবুল বশর অপু ছাতকে এনআরবিসি ব্যাংকের শাখা উদ্বোধন গনধর্ষনের মামলায় বিচারকের রায় জাল! আল্লামা শাহ আহমদ শফির মৃত্যুতে ছাতকে উৎসর্গ ফাউন্ডেশনের শোক আল্লামা আহমদ শফির মৃত্যুতে ইউনাইটেড উলামা কাউন্সিলের শোক দুর্গাপূজায় ৩ দিনের ছুটির দাবিতে সিলেটে মানববন্ধন আল্লামা আহমদ শফির মৃত্যুতে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস যুক্তরাষ্ট্র শাখার শোক দোয়ারায় নরসিংপুর বাজারে ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং উদ্বোধন ছাতক থেকে একজন যোগ্য মানুষের বিদায়- সাংবাদিক তানভীর ঘুষ-দুর্নীতির ‘রসের হাঁড়ি’ শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন ভূমি অফিস অামি অান্তরিকতার সহিত কাজ করার চেষ্টা করেছি- বিদায়ী ওসি মোস্তফা কামাল বাউল সম্রাট শাহ্ আব্দুল করিমের প্রয়ান দিবসে জেলা প্রশাসনের শ্রদ্ধাঞ্জলী নবীগঞ্জে ৪’শ পিস ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার একজন বৈদুতিক লাইট জ্বালানোকে কেন্দ্র করে মালিকের হামলা, আহত ৩ ভাড়াটিয়া ইউনিয়ন নির্বাচনে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও আওয়ামী পরিবারের উত্তরসূরীদের মূল্যায়নের দাবি
ডাকাতদের অাতংকের নাম হাবিবুর রহমান পিপিএম

ডাকাতদের অাতংকের নাম হাবিবুর রহমান পিপিএম

শেয়ার করুনঃ

ছাতক প্রতিনিধিঃ ছাতকে রেলওয়ের গোডাউনে নিরাপত্তা প্রহরীকে খুন করে ডাকাতির ঘটনার মুল আসামী ডাকাত সর্দার আজম আলী গ্রেফতার।

উল্লেখ্য যে, গত ২৯ জুন রাত ১০ টায় ছাতক রেলওয়ের নিরাপত্তা প্রহরী ফখরুল আলম প্রতিদিনের ন্যায় ছাতক রেলওয়ের গোডাউনের নৈশ প্রহরী হিসাবে ডিউটিতে নিয়োজিত হয়। সকাল ৬ টা পর্যন্ত ডিউটি শেষে নিজ বাসায় ফেরার কথা ছিল তার। কিন্ত অজ্ঞাত নামা ডাকাত দল রাত অনুমান ০২.০০ টার সময় গোডাউনের তালা ভেঙ্গে ভীতরে প্রবেশ করিয়া নিরাপত্তা প্রহরী ফখরুল আলমকে নির্মম ভাবে হত্যা করিয়া গোডাউন থাকা রেলওয়ের লৌহ জাতীয় বিভিন্ন মালামাল ডাকাতি করে নিয়ে যায়। পরেরদিন সকাল ০৮.৩০ ঘটিকার সময় ছাতক  রেলওয়ের গোডাউনে নৈশ প্রহরী ফখরুল আলম এর রক্তাক্ত লাশ পাওয়া যায়।

উক্ত ঘটনায় মৃতের স্ত্রী বাদী হয়ে  অজ্ঞাত নামা আসামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করিলে  সুনামগঞ্জ জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান বিপিএম এর দিক নির্দেশনায় এই চাঞ্চল্যকর ক্লু-লেস হত্যা মামলার দায়িত্ব পান ছাতক থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই হাবিবুর রহমান পিপিএম। ডাকাত সর্দার আজম আলীর নেতৃত্তে একদল ডাকাত খুন সহ ডাকাতির ঘটনাটি সংগঠিত করে মর্মে দ্রুত সময়ের মধ্যে মামলার রহস্য উদঘাটন করেন এবং মামলার ঘটনায় জড়িত ইতিপূর্বে ডাকাত সর্দার আজম আলীর সহযোগী ০৫ জন আসামী গ্রেফতার করিতে সক্ষম হন। গ্রেফতারকৃত ৫ (পাঁচ) জন আসামীই বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারায়  স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। ডাকাত সর্দার আজম আলী ঘটনার পরপরই মোবাইল ফোন বন্ধ করে আত্বগোপনে চলে যায় কিন্ত শেষ রক্ষা হলো না।

সুনামগঞ্জ জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান বিপিএম, সহকারী পুলিশ সুপার, (ছাতক সার্কেল) বিল্লাল হোসেন এবং অফিসার ইনচার্জ মো. মোস্তফা কামালের দিক নির্দেশনায় ছাতক থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই হাবিবুর রহমান পিপিএম এর নেতৃত্বে ছাতক থানার এসআই দেলোয়ার হোসেন, এসআই ইয়াছিন মুন্সি, এসআই সাইফুল ইসলাম, এএসআই সুমন ঘোপ, এএসআই জয়নাল অাবেদীন তালুকদারসহ অফিসার ফোর্সের সহায়তায় ৮ সেপ্টেম্বর দুপুর ১ টায় নোয়ারাই ইসলামপুর এলাকা হইতে চাঞ্চল্যকর খুন সহ ডাকাতি মামলার মুল হোতা ডাকাত সর্দার আজম আলী (৪৫) পিতা মৃত হোছন আলী সাং নোয়ারাই ইসলামপুর এলাকা হইতে গ্রেফতার করিতে সক্ষম হন। উক্ত আসামী কিছুদিন পূর্বে তিন বছর সাজা ভোগ করে মহামান্য হাইকোর্ট হইতে জামিনে এসে রেলওয়ের গোডাউনের প্রহরীকে খুন করে ডাকাতি করে। উক্ত ডাকাতের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক ডাকাতি, ছিনতাই, দ্রুতবিচার মামলা রয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই হাবিবুর রহমান পিপিএম বলেন, কোন অপরাধী অপরাধ করে পার পাবে না। তাকে আইনের আওতায় আসতেই হবে।

শেয়ার করুন

Sylhet24Live.Com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY POS Digital