বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০৪:১৮ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ
ভক্তদের কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন কিংবদন্তি ফুটবলার বিদ্যালয়ের জায়গা জোরপূর্বক দখল ও চারা রোপন কৈতক ট্রমা সেন্টার নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন এমপি মানিক ছাতকে কুইজ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণী সম্পন্ন জমির খাজনা অনলাইনে ছাতক উত্তর সুরমা প্রবাসী কল্যাণ সোসাইটির অাত্মপ্রকাশ ছাতকে অানুষ্টানিক ভাবে উদ্বোধন হলো খাঁজা ট্রাভেলস যদি আমাকে ভালোবাসিস, তবে সুরা ইয়াসিন পড়ে দোয়া করিস সুনামগঞ্জ জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত তাহিরপুরে পরিবেশ ও হাওর উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ তাহিরপুরে মাদ্রাসায় নিয়োগে অনিয়ম- ৩০ লক্ষ টাকা ঘুষের অভিযোগ  দোয়ারাবাজার উপজেলা নির্বাহী অফিসার করোনায় আক্রান্ত সুনামগঞ্জের দোযারাবাজারে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক আটক(১) সাংবাদিক আরিফুর রহমানের পিতার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ জন প্রশাসনের অতিরিক্ত সচিবের সাথে মতবিনিময়
তাহিরপুরে মাদ্রাসায় নিয়োগে অনিয়ম- ৩০ লক্ষ টাকা ঘুষের অভিযোগ 

তাহিরপুরে মাদ্রাসায় নিয়োগে অনিয়ম- ৩০ লক্ষ টাকা ঘুষের অভিযোগ 

শেয়ার করুনঃ

 

 

শাবজল হোসাইন: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার হিফজুল উলুম আলীয়া মাদ্রাসার ৬টি বিভিন্ন পদে প্রায় ৩০লাখ টাকার ঘুষ বানিজ্যে জামায়াতের ৩ জনকে নিয়োগের অভিযোগ উঠছে।

এই ব্যাপারে আজ বুধবার(০৪,১১,২০২০) নিয়োগ বাতিলের দাবীতে মহাপরিচালক মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড,ঢাকা, দূর্নীতি দমন কমিশন,ঢাকা, সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, সুনামগঞ্জ বরাবরে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়েছে। অভিযোগে উল্লেখ করা হয় নিয়োগ জায়েজ করতে মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির লোকজন নিয়েছে কুট কৌশলের আশ্রয়। তারা নিজ মাদ্রাসায় ও জেলায় নিয়োগ পরীক্ষা না নিয়ে সিলেট বিভাগের আলীয়া মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল(ডিজির প্রতিনিধি)কে ম্যানেজ করে নিয়োগ পরীক্ষা নেয়া হয়।

নিয়োগকৃত পদবীগুলোর মধ্যে অধ্যক্ষ,উপাধ্যক্ষ,হিসাব রক্ষক,অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার,নাইটগার্ড ও আয়া।

মঙ্গলবার (২৭,১০,২০২০) সিলেট আলীয়া মাদ্রাসায় পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে ।

সেই পরিকল্পনা মাফিক আগ থেকেই ডিজির প্রতিনিধিকে ম্যানেজ করে পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস করে তাহিরপুর হিফজুল উলুম আলীয়া মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আমিনুল ইসলামের আপন চাচাত ভাই ও কমিটির সদস্য তালিমুল ইসলাম (দুলাল)

এর আপন ভাই শরীফ মিয়া (দল জামায়াত) উপাধ্যক্ষ, অধ্যক্ষ পদে মহিবুর রহমান, (জামায়াত), হিসাব রক্ষক পদে সভাপতি আমিনুল ইসলামের স্ত্রী মাহমুদা আক্তার, অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার পদে মুতাসিম বিল্লাহ

সে ও তার বাবা, চাচা, ভাই রযেছে বিএনপি ও জামায়াতের গুরুত্বপূর্ন, নিরাপত্তা রক্ষী পদে সভাপতির নিজস্ব লোক আবু আলী,আয়া পদে সভাপতির পাশের বাড়ি ও আত্নীয় শাপলা বেগম (দল বিএনপি)।

আর সভাপতি নিজের বউ, চাচাত ভাই বিএনপি, জামায়াতের লোকদের নিয়ে নিয়োগ পরীক্ষার দিন সকাল থেকে চালায় ব্যাপক তৎপরতা আর তিনটি পদে মোট তিনজন প্রার্থী রাখেন। আর অফিস সহকারীসহ অন্যান পদেও সিলেক্টেড করে লোক নিয়ে প্রশ্ন আগেই দিয়ে দেয়। আর এনিয়োগ পরীক্ষা সকাল দশটায় শুরুর কথা থাকলেও ১১টা ৩০ মিনিটে শুরু হয় ও লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ করে।

 

স্থানীয় এলাকাবাসী ও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ম্যানেজিং কমিটির সদস্য জানান, ক্ষমতার অপব্যবহার করে অসচ্ছপন্থায় নিয়োগ প্রক্রিয়া ও পরীক্ষায় শুরু থেকেই অভিযোগ করে আসছেন মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে মাদ্রাসার সভাপতি ও সুপার, ডিজির প্রতিনিধি, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার তাদের নিজের পছন্দের প্রার্থীদের নিয়োগ দিতে কয়েকদফা মিটিং করেন নিজেদের স্বার্থ হাসিল করতে সিলেট আলীয়া মাদ্রাসায় নিয়োগ পরীক্ষা নেয় কৌশলে। এই নিয়োগ বাতিল করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করি।

তাহিরপুর উপজেলা আ,লীগ,যুবলীগের নেতৃবৃন্দ খুবের সাথে জানান,সভাপতি নিজের স্ত্রী ও চাচাত ভাই জামায়াত বিএনপির লোকজনকে নিয়োগ দিতেই এই নিয়োগ দিয়েছে। যার ফলে পরীক্ষায় জালিয়াতি করার জন্য উপজেলা রেখে সিলেট আলীয়া মাদ্রাসায় পরীক্ষা নেয়া হয়। নিয়মানুযায়ী প্রতিটি পদে ভুয়া সনদ দিয়ে টাকার বিনিময়ে অশিক্ষিতদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে । এখানে প্রকৃত মেধাবীরা টাকার কাছে পরাজিত হয়েছে।

প্রার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, মাদ্রাসার সুপার ও সভাপতি যার কাছ থেকে বেশি টাকা পেয়েছেন তাকে নিয়োগ দিয়েছেন। আগ থেকেই ডিজির প্রতিনিধি ম্যানেজ করে পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস করেছে। এ জালিয়াতির নিয়োগ বাতিল চাই।

রুবি আক্তার নামে আরেক প্রার্থী জানান,আমি অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার পদে

আবেদন করেছিলাম। পরীক্ষার আগেই জানতে পারি মাদ্রাসার সভাপতিসহ

সংশ্লিষ্টরা অর্থের বিনিময়ে নিজেদের পছন্দ মত লোক নির্ধারন করেছেন। তাই

সিলেট গিয়ে টাকা নষ্ট না করে পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করেনি। এই নিয়োগ

বাতিলের জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করি।

আরেক প্রার্থী জাকারিয়া মাসুদ জনান,আমি ন্যায় সংজ্ঞত ভাবে, সকল বৈধ কাগজ

পত্র দিয়ে আবেদন করার পরও ইন্টারভিউ এর কার্ড পাইনি। আমার মত ইন্টারভিউ

এর কার্ড পাইনি অনেকেই, কারন লোক আগেই নিধার্রন করা ছিল৷ আমি এই নিয়োগ

বাতিলে দাবী জানাই।

তাহিরপুর হিফজুল উলুম আলীয়া মাদ্রাসার সুপার(ভারপ্রাপ্ত)মাওলানা আবদুল

হান্নান বলেন, নিয়োগে অনিয়ম হয়নি, নিজ প্রতিষ্ঠান কেন ইন্টারভিউ হলনা এই

প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ডিজির প্রতিনিধি সিলেটের বিধায় সিলেটে নেওয়া

হয়েছে। ডিজির প্রতিনিধিত উপজেলা বা জেলা থেকে নেওয়া যায় এই প্রশ্নের

জবাবে কোন সু উত্তর দিতে পারেননি তিনি।

সভাপতি আমিনুল ইসলাম জানান, নিয়োগে কোন অনিয়ম করা হয়নি। নিয়ম মেনে নিয়োগ

প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে।

তাহিরপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, মাদ্রাসা

নিয়োগে কোন অনিয়ম করা হয়নি আর এই বিষয়ে কোন অভিযোগ পাইনি।

জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম জানান, নিজ উপজেলা ও জেলা

সদরে নেওয়ার কথা। কেন বিভাগের একটি মাদ্রাসায় নেওয়া হল সে বিষয়ে খোঁজ

নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করব।

সুনামগঞ্জ ১-আসনের সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন বলেন, মাদ্রাসায়

নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করব।

শেয়ার করুন

Sylhet24Live.Com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY POS Digital