বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:১৬ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ
প্রধানমন্ত্রীর তহবিল থেকে ১৮ নং ওয়ার্ডে শীত বস্ত্র বিতরণ প্রধানমন্ত্রীর তহবিল থেকে ১৮ নং ওয়ার্ডে শীত বস্ত্র বিতরণ চারদফা দাবীতে সিলেট সরকারি/বেসরকারি পলিটেকনিক শিক্ষার্থীরা ছাতকে মেয়রের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করলেন সচেতন যুব সমাজ শীতার্ত মানুষকে শীতবস্ত্র দান করা সওয়াবের কাজ- সালাম মাদানী ছাতকে অপরাজিত কাউন্সিলর তাপস চৌধুরী ছাতক পৌরসভায় কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন যারা ছাতকে চতুর্থ বারেরমতো মেয়র পদে কালাম চৌধুরী বিজয়ী ছাতক পৌরসভা নির্বাচনে ৫ স্তর বিশিষ্ট নিরাপত্তা বেষ্টনী, ৬টি কেন্দ্র অতি ঝুঁকিপূর্ণ ছাতকে শেষ দিনের প্রচারনায় ব্যস্ত ছিলেন নৌকা-ধানের দুই মেয়র প্রার্থী ছাতক পৌর নির্বাচন, দুই প্রিজাইডিং অফিসারের বিরুদ্ধে অভিযোগ মানুষের চূড়ান্ত লক্ষ্য হওয়া উচিত মানুষ হওয়া-এসপি মিজান ছাতকবাসী জিম্মিদশা থেকে মুক্তি পেতে চায়-পথসভায় মিজানুর রহমান চৌধুরী ছাতকে একতা বালু সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন, সভাপতি সাহেদ, সম্পাদক খলিল
বিদ্যালয়ের জায়গা জোরপূর্বক দখল ও চারা রোপন

বিদ্যালয়ের জায়গা জোরপূর্বক দখল ও চারা রোপন

শেয়ার করুনঃ

 

বিল্লাল হোসেন দোয়ারা বাজার (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ দোয়ারাবাজার উপজেলার দোহালিয়া ইউনিয়নের স্কুলের মাঠ জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার দোহালিয়া ইউনিয়ন কান্দাগাঁও নোয়াগাঁও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। মাঠের জায়গা জোরপূর্বক গাছের চারারোপণ করে দখল করা হয়েছে।

এব্যাপারে দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও দোয়ারাবাজার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি কান্দাগাঁও গ্রামের মো.আব্দুল জব্বার।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কান্দাগাঁও নোয়াগাঁও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি ১৯৭১ সালে এলাকাবাসীর উদ্যোগে এক একর জায়গায় স্থাপিত হয়। বর্তমানে দখলে আছে বিদ্যালয়ের ২৪ শতক জায়গা। স্কুল স্থাপনের প্রায় ৫০ বছর পর এখন স্কুলের মাঠের মধ্যখানে কান্দাগাঁও গ্রামের তৈমুছ আলী ও তার ভাইয়েরা মিলে সুপারি গাছের চারারোপণ করে স্কুলের মাঠ দখল করেন।

বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্দুল জব্বার বলেন, বর্তমানে করোনাভাইরাসের কারণে সারা দেশের ন্যায় স্কুল বন্ধ রয়েছে। এরই ফাকে গত ২ নভেম্বর তৈমুছ আলী ও তার ভাই ভাতিজা সকল মিলে স্কুলের মাঠে গাছের চারারোপণ করে। আমরা তাতে বাধা নিষেধ করলে তারা আমাদের কথা মানতে নারাজ। এর জন্য আমরা প্রশাসনের কাছে লিখিত আবেদন করেছি।

এব্যাপারে দোয়ারাবাজার উপজেলা শিক্ষা অফিসার পঞ্চানন কুমার সানা বলেন, স্কুলের মাঠের মধ্যখানে গাছের চারারোপণ করে জায়গা দখলের বিষয়টি আমরা দেখেছি। স্কুল স্থাপন করা হয়েছে প্রায় ৫০ বছর পূর্বে যদি কারো কোন অভিযোগ থাকত তাহলে এতদিন কেনো বলে নাই। এখন গাছের চারারোপণ করে দখলের চেষ্টা করছে। আমরা আমাদের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট বিষয়টি অবগত করেছি।

এ ব্যাপারে দোয়ারাবাজার থানার ওসি মোহাম্মদ নাজির আলম বলেন, স্কুলের মাঠ দখল করার একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি সরেজমিন তদন্তও করেছি। এখন স্থানীয় মুরব্বিগণ মীমাংসা করার জন্য কিছু সময় নিয়েছেন। আসামী পক্ষ গাছের চারা উঠিয়ে নেয়ারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, যদি স্থানীয়ভাবে মীমাংসা না হয় তালে তাদের বিরুদ্ধে আইনত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

১০

Sylhet24Live.Com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY POS Digital